Sunday, July 14, 2013

প্রথম চিঠি


  প্রথম চিঠি

গোপন মোড়কে চিঠি
ছুঁয়ে দেখ কেমন আগুন
পড়ে  দেখ  কেমন ফাগুন
কোথায়  লেগেছে তার  টান

প্রতি বর্ণে নত সমর্পণ
এক হাতে কলম যুদ্ধ
অন্য হাত স্বর্গে মুগ্ধ
সেতারে সেধেছে কোন্‌ তান
                                                    দু'চোখে বহ্নি জ্বেলে পড়ো
                                                    দু'চোখে বর্শা নিয়ে পড়ো
                                                    দু'চোখে তুচ্ছ ভেবে পড়ো
                                                    দু'চোখে পলকহীন পড়ো
যে চোখে লিখেছি আমি
সে চোখে চোখ রেখে পড়ো
                                                    চিঠি শুধু!
                                                    হৃদয়
                                                    স্পন্দন
                                                    ঝরোখা নয়?
সূর্যমুখী অঙ্কুরিত আশা
জাল বোনা
আকাশকুসুম
অন্ধকার-
আলো-
বিমুগ্ধ প্রত্যাশা                          
                                                ছুঁয়ে দেখ কেমন আগুন
                                                স্বর্গে হাত রেখে
                                                কী লিখছি
                                                কী রেখেছি
                                                 চরণে মাত্রায়
মাত্রাজ্ঞানহীন
অর্থজ্ঞানহীন
সংখ্যাজ্ঞানহীন
বর্ণব্যাঞ্জনাহীন
                                            ও মায়াবী
                                            অতল গহ্বর
                                            সুকেশী অপার
                                            আমাকে ফেরাবি কেন
                                            সরাবি কেন
                                            পর্দার ওধারে
ও মায়াবী
অতীব সুন্দর
আমাকে থামবি কেন
ডোবাবি কেন
লবণ সরোবরে
                                          আমাকে আমার করে পড়ো
                                          আমাকে তোমার করে পড়ো
প্রতি শব্দবাণ
টান টান ছিলা হ'তে  ছাড়া
অর্থের পশ্চাতে যে
টঙ্কার তরঙ্গ তাকে বোঝো
গতির সাঁই সাঁই শোনো  
                                        এ এক উল্টো পুরাণ
                                        তীরন্দাজ মরে
                                        এ এক আজব গান
                                        কণ্ঠ চেপে ধরে
                                        এ এক গজব দেশ
                                        প্রেমিকাকে ছেঁড়ে
কী চোখে দেখেছি
কী ভেবে লিখেছি
শ্বাসে শ্বাস রেখে পড়ো
চোখে চোখ রেখে পড়ো
স্বপ্নে স্বপ্ন রেখে পড়ো
                                     কী দেবো দুঃখ ছাড়া
                                     শূন্যতা ব্যর্থতা ছাড়া
                                      কিছু মিথ্যা নেই ওতে
                                      শুধু প্রেম ছাড়া
গর্হিত উদ্ধত নয়
সামর্থ্য- বাহার নয়
পরিণত প্রবচন নয়
                                    জলের অক্ষরে লেখা
                                    সহজ সজল
স্বপ্নে জাগি
মিথ্যা মাগি
অলীক ঈশ্বর
                                  এইসব বর্ণমালা
                                  যে গাছের ফল       
                                  সেই বৃক্ষ
                                  সেই কাঠ
কেউ নেই
কিছু নেই
সম্বলহীন দ্বীপ
                                ঘিরে আছে
                                ছুঁয়ে আছে
                                অগাধ নীলিমা
                                আর
                                 অবাধ তরল
ছুঁয়ে দেখ কেমন অবাধ
ছুঁইয়ে দেখ কেমন অগাধ
কী লিখেছি
কী রেখেছি
                                 লজ্জাহীন
                                 মাত্রা বৃত্তহীন
                                 এলোমেলো সজ্জায়
এ আমার
প্রথম চিঠি
এ আমার
প্রথম গান
এ আমার
ভোরের সূর্য
                               এ আমার
                               প্রথম তির
         তোমাকে লক্ষ্যে
          রেখে ছোঁড়া                                            
আমাদের শরীর শুধু


বল্লরী বন্ধনহীন স্বোচ্ছাসিত
উদ্ধত কামনার কার্মুক
স্বাগতম ঝুলে আছে মাধবীমঞ্জরী
কপোলস্পর্শী সুরঞ্জনী ওষ্ঠের চুমু
প্রতিস্পর্ধী আবরণ ছেঁড়া ভুঁইচাপা
নির্বানী কদমবাহার ঘন বাদলের কানে।
ওই তো উদ্ধত গ্লাডিলাসের প'রে
প্লাবণী পলাশ, কৃষ্ণ রাধার বিন্যাস
রক্ত জবার গর্ভমুণ্ডে রম্য প্রজাপতি
বর্ণগৌরবহীন ভ্রমরার গায়ে
সানুরাগী  স্বর্ণালী আলো
নির্বিন্ধ্যার  লোভনীয়  জলাবর্ত নাভি
জ্ঞাতআস্বাদী বিলক্ষণ জানে
চেনে ওই বিবৃতজঘন মহিমা
অবশা নদী, সাগর সফেন  কেমন
অমৃতনিস্যন্দী শুয়ে থাকে।
চূড়ায় সন্নিবদ্ধ ঘনশ্যাম
সুমেরু স্তনের উপমাউজ্জ্বল
 
 
আমদেরই শরীর শুধু বিপন্ন বিষাদ
পণ্যঠেসা আঙুরের লতা
অবৈভবী হীন অন্তঃসার
সর্বদা সতর্ক প্রহরায় ঘেরা
নীবীবন্ধ কাঁচুলি ইত্যাকার জ্বরে




 

Sunday, July 7, 2013

থোড় বড়ি খাড়া

থোড় বড়ি খাড়া

সুবাস কোথা থেকে আসে
কোথায় লুকানো আছে কী
পথরেখা নেই বহ্নিমান
মর্মর চাপা অজ্ঞাত অতীত
ধ্বংসাবশেষে গন্ধরাজ ভুল
স্মৃতিশোকাতুর জীবাশ্ম
দেবত্ব অস্বীকার করা আরক্তিম


মাতাল তরণি টলমল
ডুবে যায় ভেসে ওঠে
শ্যাওলামাখা নবজন্ম
অহল্যা উদ্ভাস


পাপশোকস্বপ্নসফলতা
মৃতসঞ্জীবনী মহেঞ্জোদাড়ো লিপি
নিরক্ষর  সভ্যতাকে হেলায়
হাস্যাস্পদ করে অনির্বাণ

বর্তমান বিবর্তলোভী আবর্তসংগীত