Sunday, August 31, 2014

অমৃতা
তন্ময় বীর

কথা রইলো
দেখা হবে মেঘের মায়ায়
নদীতীর, বিকেল, ঝিলিমিল, আলোয় ছায়ায়

এভাবে আর পুড়বো না
জ্বলবো না এরকম আর

ওয়াদা
মেঘ আনবে পুঞ্জ চিরে
ছায়া আনবে অরণ্যানীর
এই মিথ্যে সব মায়া
বকুনির ফুলঝুরি
প্রত্যাশার গন্‌গনি
অবিমৃষ্য কাঙাল্‌পনা
উপেক্ষার জলে ভাসিয়ে
বজ্রের নির্ভীকতায়
ভিজে তিতবো আনখশির
অনুরাগের উপত্যকায়

আকাঙ্ক্ষা উঁচু
কামাখ্যার চূড়ায় মেঘ
ছায়া তার লুইতের জলে
টান টান মেখলা
তীব্র মাদলের বিহু
কীর্তনের করতাল

অঙ্গীকার
গ’লে যাবো
গণতন্ত্রের দেশে
রঙিন ফানুসের নীচে
এই রিয়ালিজমের ম্যাজিক ও
বাজি রঙের অধিত্যকায়

দ্যাখো তিনিও তাজ্জব!
উবু হয়ে বসে আছেন
ভানুমতীর রং- বেরং
অলীক চিত্রকরের সামনে
দেশে কোনো
কোতোয়াল নেই
কেনানা চৌর্য নেই কোনও

ওই সেই সুন্দরীতমা
উঠে যাচ্ছেন নিরলম্ব, শূন্যে
আকাশে...

তোমার ঝারিতে
উর্বর হবে যাবতীয়
মধ্যাকর্ষণ বাড়বে চন্দ্রপৃষ্ঠে
বসতি হবে, স্বপ্নচাষ হবে

কথা রইল, প্রত্যয়
উঠে যাবো না শূন্যতায়
পুড়ে যাব না নিছক
ভেসে যাবো না অনবলম্ব

দু’হাতের তালুর মেঘে
করলতের মায়ার নীচে
অবিকল্প অপরূপ তাঁবু
মায়াময় জোনাকির আলো
ভিজে যাবো
ভিজে যাবো
তোমাকেও ভেজাবো

নিষাদীয় অপলক তির
চৌচির করবে
কাকে!
কাকে?
যাকে আমরা
কখনও দেখিনি...